পাকিস্তান-ভারত মহাযুদ্ধ!

পাকিস্তান বনাম ভারত কথাটি শুনতেই যেন শরীর টগবগিয়ে উঠে।মন পিপাসায় ভরে উঠে।এক মহারনের শব্দ শোনা যায়।আর সেটা যদি ক্রিকেট মাঠের লড়াই তাহলে তো ক্রিকেট বিশ্বকে দু’ভাগে বিভক্ত করে দিবে এক নিমিষে।

বিশ্ব ক্রিকেটে কি হবে সেটা পরে, কিন্তু পাকিস্তান বনাম ভারতের ক্রিকেট মানেই বাংলাদেশী ক্রিকেটপ্রেমীদের উচ্ছাসের,প্রতিদ্বন্দ্বিতা আর উপভোগের এক মধুর সময়।

পাকিস্তান ভারতের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি উন্মাদনায় ফেটে পড়েন বাংলাদেশী ক্রিকেট প্রেমীরা।এ যেন ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ফুটবল উন্মাদনার চেয়ে কম নয়।

গতকাল হংকংয়ের সা9থে প্রায় হেরেই যাচ্ছিলো ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি ভারত।যেন হারতে হারতেই দূর্বল হংকং এর বিরুদ্ধে জয়লাভ করে ইজ্জত রক্ষা করলো ভারত।

আজ আরও একটি পরীক্ষার দিন ভারতের।প্রতিপক্ষ হংকং থেকেও শক্তিশালী এবং নিজেদের চিরপ্রতিদ্বন্ধী পাকিস্তান।আজকের ম্যাচটি জিততে হলে অবশ্যই নিজেদের সেরা খেলার চেয়েও বেশি কিছু করতে হবে ভারতকে।

এদিকে এশিয়া কাপ-২০১৮ এর নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ ভারতের বিরুদ্ধে লড়ায়ের মাধ্যমেই শুরু হচ্ছে পাকিস্তানের এশিয়া কাপ মিশন।আন প্রেডিক্টেবল হিসেবে পরিচিত ক্রিকেটের অন্যতম সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভালো করার ইঙ্গিত দিচ্ছে প্রথম দিকেই।

আজকের ম্যাচ নিয়ে পর্যালোচনা করলে দেখা যায় হংকংয়ের সাথে নাকনি-চুবানি খাওয়া ভারত ঘুরে দাঁড়াতে না পারলে পাকিস্তানের সাথে ম্যাচটিতে বিপদ হলেও হতে পারে।তবে দুই দলের সাম্প্রতিক ম্যাচগুলোর দিকে তাকালে ভারতকেই এগিয়ে রাখতে হবে।এদিকে আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তান নিজেদের দিনে বিশ্বের যেকোন ক্রিকেট পরাশক্তিকে হারিয়ে দেয় খুব সহজেই।

 

আরও পড়ুনঃ

এশিয়ে কাপে এখন পর্যন্ত সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা কে বিদায় নিতে হয়েছে ইতোমধ্যে। বাংলাদেশ এবং আফগানিস্তানের সাথে হেরে বিদায় নেয় দলটি।

এদিকে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কা’কে ১৩০ রানের বিশাল ব্যাবধানে পরাজিত করে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলকে পরাজিত করে দেশে এবং বিদেশে বেশ প্রশংসায় ভাসছে টাইগাররা।

বিশেষ করে ইনজুরির মাঝেও এক হাতে ব্যাটিং করে বিশ্ব ক্রিকেটে নজির স্থাপন করেন তামিম।

মুশফিকুর রহিমের ১৪৪ রানের ইনিংসটি যেন বাংলাদেশ দলের জয়ের প্রধান ভরসা।অধিনায়ক মাশরাফি,তামিম ইকবাল এবং মুশফিকুর রহিমদের নেতৃত্বে বাংলাদেশও একদিন ভারত-পাকিস্তানের মত  ক্রিকেট রাজত্ব করবে এই আশাবাদ সকল বাংলাদেশী ক্রিকেট প্রেমীদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here