পায়ের পেশিতে টান পড়লে কি করবেন।

পায়ের পেশিতে টান পড়লে কি করবেন। ভিটামিন ই, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম এর অভাবে পায়ের পেশিতে টান পড়ে।পায়ের পেশির টান পড়লে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আপনি ঘুমাচ্ছেন। হঠাৎ করেই পা বাঁকা হয়ে আসছে।কোনভাবেই হাত দিয়ে সোজা করতে পারছেননা পা।  এরকম অনেকেরই হয়।অনেকেই ধারণা করে বা নিশ্চিত করেই বলে দেন এইটা ভূত বা জ্বীনের কাজ।কিন্তু না ।পায়ের পেশিতে টান লাগা কোন বদ আছরের কারনে হয়না।এই সমস্যা টা হয় পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবারের অভাবে।     

জেনে নিন পায়ের পেশিতে টান লাগলে কি করবেনঃ

  • যদি হাটুর নিচে পায়ের পেছনে টান লাগে তাহলে পায়ের আঙ্গূল ধরে আস্তে আস্তে নিজের দিকে টানুন।আর যদি সামনের দিকেই হয় তাহলে আঙ্গুল গুলো ধরে পেছনের দিকে আস্তে আস্তে টানুন ।
  • অনেক সময় উরুর পেছনের দিকেও টান পড়ে।এক্ষেত্রে চিত হয় শুয়ে হাটু ভাজ করে আপনার বুকের উপর নিয়ে আসুন যতটুকু সম্ভব হয়।আর উরুর পেছনে পায়ে আলতো করে মালিশ করুন।
  • আর যদি পেশি শক্ত হয়ে আসে তাহলে ওয়াটার ব্যাগ বা হট বা ব্যাগের মাধ্যমে কিছুক্ষন সেকা দিন পেশিতে।আবার যদি পেশি নরম ফুলে যায় তাহলে আইসব্যাগ লাগিয়ে ঠান্ডা সেকা দেন।
  • যদি মুভ বা ব্যাথানাশক বাম থাকে তাহলে মালিশ করতে পারেন।মুভ মালিশ করলে এই সমস্যা থেকে প্রাথমিকভাবে মুক্তি পেতে পারেন।

পানি শূন্যতা,মাংশপেশি বা স্নায়ুতে আঘাত,রক্তে পটাশিয়াম,ক্যালশিয়া্ম,ম্যাগনেশিয়াম এর অভাব।পায়ের পেশিতে টান পড়লে কি করবেন।

আরও পড়ুনঃ আপনার যৌন ক্ষমতা কেমন জানুন রক্তের গ্রুপ অনুযায়ী। http://sonalikantha.com/আপনার-যৌন-ক্ষমতা-কেমন-বলব/

পায়ের পেশিতে টান দূর করতে করনীয়।

  • ঠান্ডা বরফের সেঁক দিলেও পায়ের পেশির টান দূর হয়।রাতে একটি কাপড়ের মধ্য বরফের টুকরা পেঁচিয়ে পেশিতে সেঁক দিলে উপকার পাওয়া যাবে।

  • যেহেতু পটাশিয়ামের অভাব হলে পায়ের পেশিতে টান পড়ে।তাই বেশি করে আপেল খেতে পারেন।এতে অনেকটা মুক্তি পাবেন।এছাড়া প্রতি রাতে এক বা দু চামচ মধু খাবেন।

  • লবঙ্গের তেল পেশি টান দূর করতে পারে। তেল কুসুম গরম করে ১০ মিনিট মালিশ করে সুফল পাওয়া যায়।

  • পায়ের পেশিতে টান পড়লে কি করবেন। পেশির নিচে একটি বালিশ রাখতে পরেন যেন পেশির টান না আসে।শীতকালে বেশি কাপড় পরিধান করে শুইলে টান কম আসবে।ডাক্তারের পরামর্শ মত ভিটামিন ই,ক্যালসিয়াম পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার ও ঔষধ সেবন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here