হাঁসির দূর্ঘটনাঃ যা মনে হলে আজও হাসেঁন।

মজার ছবি
সংগৃহীত

হাঁসির দূর্ঘটনাঃ যা মনে হলে আজও হাসেঁন। ধরুন সময়টা বর্ষাকাল, আপনি অনেক সখ করে একটি জামা কিনলেন।আপনার প্রিয় কোন স্থানে বোড়াতে যাচ্ছেন সখের জামাটি পরে।অথবা প্রিয় মানুষের সাথে দেখা যাচ্ছেন অনেকদিন পর।বাসা থেকে বের হলেন সেরকম পোজ নিয়ে।রাস্তার ধারে হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ একটা বাস বা ট্রাক আপনার পাশ দিয়ে সাঁ করে বিদ্যুৎ গতিতে চলে গেলো।কিছুক্ষণ পর আপনি অনুভব করতে পারলেন যে, গাড়িটি চলে যাওয়ার সাথে সাথে আপনার সখের নতুন জামা আর জগৎ বিখ্যাত পোজ রাস্তার ময়লা পানিতে আপনাকে একদম কর্মাক্ত করে দিয়েছে।এবং আপনি সাথে সাথে থ হয়ে দাঁড়িয়ে রইলেন।মনে মনে গাড়ির ড্রাইভারকে গালি দিচ্ছেন।এখন থেকে বর্ষার সময় রাস্তা দিয়ে হাঁটার সময় নিশ্চয় সেই তিক্ত অতীত আপনাকে নিজের অজান্তেই সতর্ক করে দেয়।

ধরুন আপনি বহু দিন ধরে ভাবছেন দেশের সবচেয়ে বড় পার্ক রমনা পার্কে ঘুরতে যাবেন যখন ঢাকায় যাবেন।একদিন আপনার সে ইচ্ছা পূরণ হলো।আপনি বসে আছেন পার্কে একেবারে জগৎ বিখ্যাত স্মার্ট হয়ে।এতই স্মার্ট হয়ে পার্কে গেছেন যে, মনে হচ্ছে আপনার থেকে বেশি স্মার্ট এই পার্কে আর কেউ নেই।আড্ডার এক মুহুর্তে একটা মেয়ের সাথে আপনি ভাব নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করতেছেন।মেয়েটার সাথে আপনার ভাব বিনিময়ে ক্রমান্বয়ে গভীর হচ্ছে।দুজন দুজনে চোখাচোখি আর ইশারায় গভীর সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করতেছেন।কিন্তু হঠাৎ আপনার এবং  ঐ মেয়েটির সাথে যখন ভাব বিনিময় গভীরতায় রুপ নিচ্ছিলো ঠিক তখনই আপনার মাথার উপর দিয়ে উড়ে গেলো এক ঝাঁক কোকিল।আপনি একটু অভার স্মার্ট সাজার জন্য কোকিল গুলোকে বললেন, ওয়াও.. হাউ সুইট..!হাঁসির দূর্ঘটনাঃ যা মনে হলে আজও হাসেঁন। শেষ না করতেই সবাই হেঁসে উঠলো আপনার দিকে তাকিয়ে।আপনি ঘটনার রহস্য আবিষ্কার করতে গিয়েই বুঝতে পারলেন স্বাধের কোকিল আপনার মাথায় মলত্যাগ করে চলে গেলো।আর সে কারনেই আপনার আশপাশের সবাই আপনাকে নিয়ে ট্র্রেলে মেতে উঠেছে।তারপর সেই মন খারাপ আর ট্রলের ঘটনাটি যতবার  মনে পড়ে ততবার আপনি নিশ্চয় নিজে নিজে বলে ওঠেন, “ন্যাড়া একবারই বলেতলায় যায়।” বেল পড়ার  ভয়ে দ্বিতীয় বার আর যায়না।

আরও পড়ুনঃ আনুষকা ও ভিরাট কোহলিকে নিয়ে ট্রল। http://www.sonalikantha.com/আনুশকা-শর্মা-বিরাট-কোহলি

আপনি বন্ধুদের সাথে কোন বনভোজন অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য তড়িগড়ি করে বাসা থেকে বের হলেন।খুব পরিপাটি করে ভাব নিয়েই বেরিয়েছেন যার জন্য পিকনিক বাসে বসে বার বার মোবাইলের স্ক্রিনে চেহারা দেখতেছেন।বাসটিতে নারী পুরুষ অনেকেই রয়েছেন।হঠাৎ আপনার কোন এক বন্ধু বলে উঠলো, দোস্ত তোর প্যান্টের জিপার খোলা।আচমকা আপনি প্যান্টের জিপারে হাত দিয়ে দেখলেন সত্যিই আপনার প্যান্টের জিপার খোলা।বাসের এত গুলো জিপার কান্ডের কথা মনে হলে কেমন লাগে ভাবুন তো একবার।হাঁসির দূর্ঘটনাঃ যা মনে হলে আজও হাসেঁন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here